সারাদেশ

আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাটে পরিবহণ সংকট যাত্রী দুর্ভোগ চরমে

শাহজাহান বিশ্বাস, মানিকগঞ্জ :

হঠাৎ করে আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাটে পরিবহণ সংকটের কারণে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। মহাসড়কে যানজট এবং ১৬ ডিসেম্বর সরকারী ছুটি শেষে যাত্রীদের চাপ বাড়ায় এ সংকটের সৃষ্টি হয়েছে। এ সুযোগে পরিবহণ শ্রমিকরা যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। পরিবহণ শ্রমিকরা সাভার,নবীনগরে বাসে ২শ’ এবং ট্রাকে ১শ’ টাকা করে ভাড়া আদায় করে। অনেক যাত্রীরা ২/৩ ঘন্টা করে অপেক্ষার পর জীবরেন ঝুকি নিয়ে বাধ্য হয়ে ট্রাক যোগে গন্তব্যে রওয়ানা দেন। সন্ধ্যার পরও আরিচা বাসস্ট্যান্ডে যাত্রীদের ভীড় এবং ট্রাকে উঠে গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে। আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাটে এসে আজ শুক্রবার যাত্রীদেরকে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার শুক্রবার এমনিতেই পাটুরিয়া এবং আরিচা ঘাটে যাত্রীদের চাপ থাকে। এরপর গত ১৬ ডিসেম্বর দক্ষিণ-পশ্চিামাঞ্চলে অনেকেই স্বজনদের সাথে ছুটি কাটাতে গ্রামের বাড়িতে যান। বেসরকারী চাকুরি জীবীরা শনিবার অফিস করার জন্য বিশেষ করে যারা গার্মেন্টেসে চাকুরি করেন তারা শুক্রবারেই কর্মস্থলে ছুটতে শুরু করেন। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের এসব যাত্রীরা ওপার রাজবাড়ির দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ফেরি ও লঞ্চ যোগে পাটুরিয়া ঘাটে এসে বাসে এবং পাবনার কাজিরহাট থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট যোগে আরিচা ঘাটে এসে বাস যোগে ঢাকার গাবতলী, সাভার, নবীনগর, আশুলিয়া এবং গাজিপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পৌঁছান। দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার সড়ক পথে সহজ যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে পাটুরিয়া এবং আরিচা ঘাট। ফলে সরকারী ছুটিতে যেমন ঈদ-তেহারে এ দুটি ঘাটে যাত্রীদের অত্যাধিক চাপ পড়ে। আর এ চাপ সামলাতে বাড়তি গাড়ির প্রয়োজন পড়ে। কিন্ত আজ শুক্রবার হঠাৎ করে আরিচা এবং পাটুরিয়া ঘাটে যাত্রীদের চাপ পড়লে পরিবহণের সংকট দেয়।

যানবাহন শ্রমিকরা জানান, শুক্রবার মহাসড়কে যানবাহনের ভীড় থাকে বেশী। এতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে দফায় দফায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে বাসগুলো সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারেনি। ফলে আরিচা ও পাটুরিয়া ঘাটে বাস সংকটের সৃষ্টি হয়েছে।

মো. খায়রুল কবির নামের এক যাত্রী জানান সে পাবনা থেকে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে শুক্রবার বিকালে ৪টায় আরিচা ঘাটে পৌঁছান। কিন্ত সন্ধ্যা ৭টাতেও বাসের নাগাল পাননি। কখন বাসে উঠবেন তাও তিনি বলতে পারছে না।

পাবনার ইশ্বরদি থেকে আসা যাত্রী আব্দুল খালেক জানান, সে কাজিরহাট থেকে স্পিডবোট যোগে আরিচা ঘাটে আসেন বিকাল সাড়ে ৪টায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ২শ’ টাকা ভাড়া দিয়ে যাত্রী সেবা গাড়িতে উঠেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় আরিচা ঘাট ঘুরে দেখা গেছে, পরিবহণ সংকটের সুযোগে বাস শ্রমিকরা সাভার-নবীনগরের ১শ’ টাকার ভাড়া ২শ’ টাকা করে আদায় করছে। ট্রাকের উপরে যাত্রী প্রতি ১শ’ টাকা করে নিতে দেখা গেছে।

বাড়তি ভাড়ার বিষয়ে পরিবহণ শ্রমিকরা বলেন, আরিচা থেকে ভর্তি করে গেলে ঢাকার দিক থেকে খালি আসতে হয়। তাই ২শ’ টাকা করে ভাড়া নিতে হয়েছে।