সারাদেশ

মানিকগঞ্জে জরুরি অক্সিজেন সেবায় ২৪ ঘন্টা হটলাইন সচল রেড ক্রিসেন্টের

স্যামসন সুপ্রিয় জামান, স্টাফ রিপোর্টার :

মানিকগঞ্জ ইউনিটের ১৫ জন সেচ্ছাসেবী সর্বদা প্রস্তুত, তাদের একটি হটলাইন নম্বর (০১৭২১৪৪৬২২০) সবসময় খোলা থাকে। এই নম্বরটিতে ফোন পেতেই সেচ্ছাসেবী টিম দিন-রাত ২৪ ঘন্টা যেকোনো সময় ছুটে যায় রোগীর নিকট…

২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে সারা বাংলাদেশে করোনার ব্যাপক বিস্তৃত হওয়ার কারণে সারাদেশব্যাপী লকডাউন করা হয়। মানিকগঞ্জ এর বাইরে নয়।

করোনার এই ভয়ংকর সময় থেকেই বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট মানিকগঞ্জ ইউনিটের চেয়ারম্যান আ্যডভোকেট গোলাম মহীউদ্দীন, সেক্রেটারি মোঃ ইসরাফিল হোসেন, ইউনিট লেভেল অফিসার মিজানুর রহমান জীবন এবং যুব প্রধান হাছিবুল হাসান (হাছিব) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও নির্দেশনায় যুব সেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে অনলাইন অফলাইন সচেতনামূলক পোস্টার প্রকাশ,মাইকিং,লিফলেট বিতরন,বিনামূল্যে মাস্ক বিতরন ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরন,জেলখানা, হাসপাতাল,জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সহ বিভিন্ন জায়গায় স্প্রে-কার্যক্রম পরিচালনা করে।

তাছাড়া এখন পর্যন্ত সাত বার অসহায় এবং নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী তুলে দিয়েছেন যুব ও সেচ্ছাসেবকরা। বর্তমানে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি মানিকগঞ্জ ইউনিটের সহযোগীতায় করোনা ভাইরাস সংক্রামনে আক্রান্ত রোগীদের জরুরী প্রয়োজনে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহ করে।

রেড ক্রিসেন্ট মানিকগঞ্জ ইউনিটের সুযোগ্য চেয়ারম্যান আ্যডভোকেট গোলাম মহীউদ্দীন বলেন,আমাদের সংগঠনের সেচ্ছাসেবী ভাইয়েরা দিন রাত সর্বদা প্রস্তুত রোগীদের সেবা দিতে।

সেক্রেটারি মোঃ ইসরাফিল হোসেন বলেন,আল্লাহর দরবারে সকলের সুস্বাস্থ্য কামনা করছি। সরকারী সকল বিধি নিয়ম মেনে চলি প্রয়োজন ছাড়া বের না হই।সুস্থ থাকি।

সংগঠনটির যুব প্রধান হাছিবুল হাসান (হাছিব) বলেন,আমার যুব ও সেচ্ছাসেবক ভাইয়েরা যেকোনো কার্যক্ষেত্রে অনেক এক্টিভ। সকলের নিরাপত্তার কথা ভেবে আমরা যার যার নিজেদের সকল সুরক্ষা সামগ্রী পেয়েছি কিছুটা বাকি আছে তবে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির জাতীয় সদর দপ্তর এর সহায়তায় আমরা সকল সুরক্ষা সামগ্রী খুব দ্রুত পেয়ে যাবো আশা করছি।

সংগঠনটির ইউনিট লেভেল অফিসার জানান,বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি এর জাতীয় সদর দপ্তর এর নির্দেশনায় দিবা-রাত্র দুই শিফটে কাজ চলছে। এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।